ভারতের AKASH-NG এয়ার ডিফেন্স শত্রুর হুমকির জন্য নতুন একটি চ্যালেঞ্জ। AKASH-NG New Challenge For Enemy Thereat.

ভারতের AKASH-NG এয়ার ডিফেন্স শত্রুর হুমকির জন্য নতুন একটি চ্যালেঞ্জ। AKASH-NG New Challenge For Enemy Thereat.
Credit:ANI

ভারতের AKASH-NG এয়ার ডিফেন্স শত্রুর হুমকির জন্য নতুন একটি চ্যালেঞ্জ। AKASH-NG New Challenge For Enemy Thereat.


ভারতের DRDO সফল ভাবে একটি এয়ার ডিফেন্স সিস্টেমের অন্তর্গত [SAM] সারফেস টু এয়ার মিসাইলের সফল পরীক্ষা চালিয়েচে যেটা আগের বেস ভার্সনটির থেকে অনেক উন্নত তেমনি এটার রেঞ্জ দুই থেকে আড়াই গুন্ হয়েছে বলে মনে করা যাচ্ছে। 


সোমবার ভারতের DRDO উড়িষ্যা উপকূলের সংযুক্ত পরীক্ষা বলয়ের মধ্যে থেকে এই মিসাইলের সফল ভাবে উৎক্ষেপণ করেন এবং একটি দ্রুত ম্যানুভার টার্গেটের প্রতি যেটা সফল ভাবে এই মিসাইল NEUTRALIZE করে। 


বিভিন্ন ডিফেন্স এনালিস্টর থেকে জানা যাচ্ছে AKASH-NG ঠিক তার বেস ভেরিয়েন্টের মতো মোবাইল লাঞ্চার প্লাটফ্রম পাবে এবং এটি ওপেন থাকবে না পরিবর্তে এগুলি ক্যানিস্টারের মধ্যে চাপা থাকবে যার সর্বোচ্ছ স্থাপনের সময় নেবে মাত্র ২০ মিনিট। 


আরো পড়ুন : K-SERIES মিসাইল কিভাবে ভারতকে দৃতীয় আঘাতের ক্ষমতা প্রদান করে সমুদ্র থেকে। 


AKASH-NG সদ্য টেস্ট হওয়া SAM টি শত্রুর তাৎপর্য পূর্ণ অস্ত্র বহর অফেন্সিভ রোলে একটি বিশাল চ্যালেঞ্জ ছুড়েদিতে দিতে একরকমের বানানো হয়েছে যেখান শত্রুর কলা-কৌশলীরা সহজে ভারতের আকাশ সীমানা লংঘন করতে একটি বারও ভাববেন এটি প্রধানত বানানো হয়েছে ভারতের সমস্ত বড়ো শহর এবং উচ্চ্ ভ্যালু সম্পন্ন টার্গেট গুলিকে সুরক্ষা প্রধান করার জন্য এনিমির এরিয়াল টার্গেট থেকে। 


ভারতের প্রাইম মিনিস্টার কিছুদিন আগেই সবুজ সিগন্যাল দিয়েছিলেন এক্সপোর্টরে জন্য ভারতের তৈরি AKASH মিসাইলটি ভারতের সমস্ত বন্ধ প্রতিম দেশগুলির কাছে তারই মধ্যে আরো একটি উন্নত ভার্শন AKASH-NG আসায় অনেকেই ভাবছেন AKASH মিসাইলটির বিক্রি আরো বৃদ্ধি হতে পারে। 


DRDO তৈরি নতুন AKASH-NG এয়ার ডিফেন্সটি শত্রুর যেকোনো দ্রুত ম্যানুভারিং টার্গেট যেমন সাবশনিক ও সুপারশনিক মিসাইল,ড্রোন,ক্রুশ-মিসাইল,ফাইটার প্লেন নিমেশেই ধ্বংস করতে সক্ষম এই এয়ার ডিফেন্স সিস্টেমটি, যেখান এই SHORT RANGE [SAM] ভেরিয়েন্টি ১০ গুন্ বেশি কার্যকারী তুলনায় অন্য সব SHORT RANGE [SAM] এর পরিবর্তে একই সঙ্গে ১০টি টার্গেটকে সনাক্ত ও ডেস্ট্রয় করতে সক্ষম। 


পুরানো AKASH সিস্টেমটি যেখানে ৩০ কিলোমিটারের মধ্যে এবং ২০ কিলোমিটার উচ্চতা পর্যন্ত সমস্ত রকমের এনিমি টার্গেট NEUTRALIZE করতে সক্ষম ছিলো সেখানে নতুন AKASH-NG রেঞ্জ ৭০ থেকে ৮০ কিলোমিটার মনে করা হচ্ছে এবং একইভাবে ২০ কিলোমিটার উচ্চতা পর্যন্ত সমস্ত রকমের এনিমি টার্গেটকে NEUTRALIZE করতে সক্ষম হবে।


পুরানো AKASH সিস্টেমটি প্রপালসন সিস্টেম হিসাবে এটিতে রেমজেট ইঞ্জিন ব্যবহার করা হতে একই ভাবে রাজেন্দ্র PESA রাডার ব্যবহার করা হতো টার্গেট ট্র্যাকিং ও ডেস্ট্রয় করার জন্য কিন্তু নতুন AKASH-NG তে স্টেট অফ দা আর্ট মাল্টি ফাংশনাল AESA রাডার ব্যবহার করা হয়েছে যেটা জ্যাম ও ইলেকট্রিক কাউন্টার মেজর লাঞ্চ করা একই বারেই অসম্ভব সঙ্গে তিনটি কাজ সার্চ,ট্র্যাক, ও ফায়ার কন্ট্রোল একটি রাডারের মধ্যে কন্ট্রোল করা সম্ভব। 


AKASH-NG তে একটি নতুন দুই স্তর বিশিষ্ট ডুয়াল পালস রকেট মোটর প্রপালসন ব্যবহার করা হয়েছে যেটা এই সিস্টেমের রেঞ্জ অনেক বাড়াতে সাহায্য করে একই ভাবে মিসাইলের ঠিক মাঝ বরাবর চারটি  ও শেষ অংশে চারটি ডেল্টা ফিন ব্যবহার করা হয়েছে যেটা সমস্ত উচ্ছ গতি ও ম্যানুভার করা টার্গেটেকেও NEUTRALIZE করতে সক্ষম হবে।


AKASH-NG তে একটি নতুন দেশীয় ভাবে তৈরি AESA SEEKER ব্যবহার করা হয়েছে সঙ্গে একটি নতুন লেসার প্রক্সিমিটি ফিউস ব্যবহার করা হয়েছে যেটা টার্গেটকে মিসাইল নিজে থেকে সনাক্ত করে তার ওয়ারহেডে থাকা এক্সপ্লোসিভ নিজে ডেটোনেট করতে পারে সহজে, একই ভাবে AKASH-NG তিব্র ম্যানুভার করার জন্য এতো যুক্ত করা হয়েছে ইলেক্ট্রোমেকানিল একচুয়েশনপিফ্রেগমেন্টেড ওয়ারহেড সিস্টেম যেটা টার্গেটকে আঘাত করার বদলে নিজেকে উড়িয়ে দেবে টার্গেটের কাছে আসলে। 


ভারতের DRDO এর তৈরি AKASH-NG পৃথিবীর সমস্ত শর্ট রেঞ্জের এয়ার ডিফেন্স গুলির মধ্যে ওয়ান অফ দা বেস্ট অপসন [SAM] সঙ্গে তুলনামূলক এটির দাম আরো সমস্ত শর্ট রেঞ্জের [SAM] থেকে কয়েকশো গুন্ সস্তা যেটি এনিমির যেকোনো এরিয়াল টার্গেটকে ঘায়েল করতে সক্ষম। 



Post a Comment

0 Comments