কেনো পাকিস্তান ভারতের সঙ্গে হঠাৎ শান্তি চায় ? [Why Pakistan Wants Sudden Peace With India]

কেনো পাকিস্তান ভারতের সঙ্গে হঠাৎ শান্তি চায় ? [Why Pakistan Wants Sudden Peace With India]
ক্রেডিটঃ https://globalriskinsights.com

কেনো পাকিস্তান ভারতের সঙ্গে হঠাৎ শান্তি চায় ? [Why Pakistan Wants Sudden Peace With India]


সম্প্রতি পাকিস্থান ও ভারতের DGMO লেভেলে একটি স্টেটমেন্ট প্রকাশ করা হয় LOC তে যুদ্ধবিরতি করার ও সীমানায় শান্তি ফেরাবার জন্য কিন্তু পাকিস্তানের পক্ষ থেকে হঠাৎ কেনো এই পদক্ষেপ সীমানায় শান্তি ফেরাবার জানাজাক আসল কারণ গুলি।  



সংক্ষিপ্ত কিছু আলোচনা সীমানা দ্বন্ধ নিয়ে। [Why Pakistan Wants Sudden Peace With India] 

কেনো পাকিস্তান ভারতের সঙ্গে হঠাৎ শান্তি চায় ? [Why Pakistan Wants Sudden Peace With India]
ক্রেডিটঃ http://www.indiandefencereview.com

জন্ম ও স্বাধীনতা পাবার ঠিকপর থেকেই ভারত ও পাকিস্থানের মধ্যে কাশ্মীর নিয়ে দ্বন্দ্ব তৈরি হয় এবং যেটার জন্য যুদ্ধ পর্যন্ত হয় ১৯৪৭-৪৮ সালে পরে ইউনাইটেড নেশন বা জাতিসংগের হস্তক্ষেপের মাধ্যমে যুদ্ধবিরতি করা হয়। 


পরে যুদ্ধবিরতি স্থানটিকে দুই দেশের LOC বলে প্রকাশ করা হয় যেটা ১৯৭২ সিমলা চুক্তি নামে পরিচিতি পায় বাংলাদেশের মুক্তি যুদ্ধের পর। 


কিন্তু এটায় কোনো সঠিক ফল পাওয়া যায়নি বিগত সাত দশক ধরে LOC একটি উত্তপ্ত স্থান হিসাবে পরিচিতি পায় যেখানে দৈনিক যুদ্ধবিরতি ও অস্ত্রবিরতি লঙ্ঘন করা হয়, কোনো দিন সঠিক ভাবে যুদ্ধবিরতি ও অস্ত্রবিরতি মানা হয়নি। 


Note: এটা আমার পার্সোনাল মতামত হতে পারে আপনি এগুলির সঙ্গে একমত নাও হতে পারেন তাই নিচে কমেন্ট করে জানান। আসুন জেনে নেয়া যাক কারণ গুলি কি। 



১.কাশ্মীরে আর্টিকেল ৩৭০ ধারা প্রত্যাহার। [Why Pakistan Wants Sudden Peace With India]

২ বছর আগে ঘটে যাওয়া ভারত সরকারের আর্টিকেল ৩৭০ ও আর্টিকেল ৩৫A প্রত্যাহার করার পর কিছুদিন আগে সফল ভাবে 4G ইন্টারনেট পরিষেবা শুরু করার পর পাকিস্তান এই কাশ্মীর টার্মকার্ডটি আর খেলার সুযোগ পায়নি তাছাড়াও সেখানে নতুন প্রজন্ম মূলস্রোতের ধারায় ফিরে আসছে সেখানে আর কোনো VIOLENT বা পাথর ছোড়া হচ্ছে না যেটা পাকিস্থানের মাথা ব্যাথার কারণ। 

তাছাড়াও, পাকিস্তানের ট্রেন করা আতঙ্কবাদী দের ভারতীয় সেনা খুঁজে খঁজে সাফাই করছে যেটা কাশ্মীরে আর কোনো লোকাল আতঙ্ক বাদী নিয়োগ করতে পারছেনা কিন্তু পাকিস্তানের প্ল্যান ছিলো কাশ্মীরকে বাজে ভাবে অশান্ত করেতোলা যেটা তারা অসফল হয়েছে তাই তারা এখন ভারতের সঙ্গে বন্ধুত্ব চাইছে।  



২.চীনের সেনা প্রত্যাহার।[Why Pakistan Wants Sudden Peace With India]

আমরা জানি চীন-পাকিস্তান অল ওয়েদার ফ্রেন্ড সেটা লোক দেখানো কিন্তু ভিতরে পাকিস্তান চীনের থেকে প্রচুর লোন নেয়ায় চীন একপ্রকার পাকিস্থানকে তাদের দাস বানিয়ে রেখেছে এবং ভারতের বিরুদ্ধে ব্যবহার করে। 

তাই যখন চীন যখন ভারতের সঙ্গে সীমান্ত সেনা প্রত্যাহার ও যুদ্ধ বর্জন করতে চাইছে তাহলে এটা দাসকেও ফলো করতে হবে তাছাড়াও চীন কোভিড-১৯ মাধ্যমে যেটুকু রেপুটেশন হারিয়েছে তাআবার ফেরত পাবার চেষ্টা করছে তাই তারা ভারতের সঙ্গে আরো কোনো সংঘাতে জড়াতে ইচ্ছুক না যেটা তাদের অল ওয়েদার ফ্রেন্ড বা কৃত দাস কেও মেনে চলতে হবে নাহলে আরো লোন পাবেনা। 

আরো পড়ুন : ফিলিপিন্স কেনো ব্রামস ক্রুশ মিসাইল কিনতে ইচ্ছুক ?


৩.FATE গ্রেলিস্ট। [Why Pakistan Wants Sudden Peace With India]

যারা জানেননা FATE কি তাদের বলি FATF বা  [financial action task force]  হচ্ছে এমন একটি প্রতিষ্ঠান যেটা পৃথিবীর সমস্ত দেশের উপর নজর রাখে যারা বেআইনি ভাবে জনগণের পয়সা তছনছ করে  বা আতঙ্কবাদ পেছনে খরচ করে তাদের উপর SANCTION আরোপ করে ফলে তারা কোনো দেশের থেকে আর্থিক সহয়তা পেতে পারেনা।

পাকিস্তান আতঙ্ক বাদীদের জন্য একটি খোলা সর্গ বলতে পারেন একইভাবে তারা বেআইনি ভাবে জনগণের পয়সা তছনছ করে বা আতঙ্কবাদ পেছনে খরচ করে সেটার কারণে আজ FATF পাকিস্তানকে গ্রেলিস্টে রেখেছে চীনের সাহায্য নাপেলে আজ ব্ল্যাক লিস্ট হয়েযেতো। 

পাকিস্তান জানে তাদের গ্রেলিস্টে হবার পেছনো ভারতের শক্ত একটি লবি বা প্রভাব কাজ করছে যেটা তারা অস্বীকার করতে পারবেনা তাই এখন তারা হতেপারে ভারতের সঙ্গে শান্তি চায় কারণ পাকিস্তানের ইকোনোমি এখন দেউলিয়া হবার মুখে।  



৪.বন্ধু যখন শত্রু। [Why Pakistan Wants Sudden Peace With India]

ঠিকই শুনেছেন পাকিস্তান সবসময় মুসলিম ব্রাদারহুড বুলি আওড়াতো সেটাই এখন তাদের জন্য ভারী পড়ছে কারণ আমরা জানতাম সৌদিআরব পাকিস্তানের একটি ভালো বন্ধ কিন্তু ভারতের শক্ত কূটনীতির কাছে সেটাও হারতে বসেছে। 

বিগত কিছু বছর পাকিস্তানের থেকে সৌদি আরব মুখ ফিরিয়ে নিয়েছে বললেই চলে কারণ যেভাবে পাকিস্থান তুরস্কের সাথে ঘনিষ্ট বাড়িয়াছে এবং OIC বা  Organisation of Islamic Cooperation ভেঙে হুমকি দিয়েছে যেটার হেড বা প্রধান সৌদি আরব ধরা হয়, পাশাপাশি পাকিস্তান যেভাবে নিজেদের সেনা ইয়েমেনে পাঠিয়েছে তুরস্কের সাহায্য করার জন্য যা সৌদি আরব ও পাকিস্তান উভয়ের দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক আরো তিক্ত হয়।  



Post a Comment

0 Comments